Wednesday, 15 July, 2020 খ্রীষ্টাব্দ | ৩১ আষাঢ় ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

গৃহকর্মী হাসনা কি বিচার পাবে?

হাসনা নামে একটি একটি মেয়ে কাজ করতো এক ব্যাংকারে বাসায়। সেখানে তাকে নানা ভাবে নির্যাতন করেছেন বলে দাবী করেছে গৃহকর্মী হাসনা বেগম। থানায় এসে মেয়েটি বিচার চেয়েছে। সাংবাদিক সাজিদুর রহমান সাজুর ফেইসবুক  টাইমলাইন হতে নেয়া হুবুহু লেখাটি পাঠকদের সামনে তুলে ধরলাম। ==========

সাজিদুর রহমান সাজু:

হাসনা নামের ১৮ বছের গৃহকর্মীর মাথাসহ পুরো শরীরে রয়েছে অসংখ্য আঘাতের চিহ্ন। বাপ-মা হারা এতিম হাসনার বাড়ি কনলগঞ্জের ধলাইপাড় গ্রামে। গৃহকর্মী হিসাবে মৌলভীবাজার শহরের কুসুমবাগ এলাকায় এক ব্যাংকারের বাসায় কাজ করত। সেই ব্যাংকার মৌলভীবাজার থেকে বদলি হয়ে বর্তমানে সিলেটের একটি শাখায় কর্মরত আছেন। তবে তার বাসা মৌলভীবাজারেই রয়েছে। গতকাল সেই বাসা থেকে পালিয়ে নিজ বাড়িতে এসেছে হাসনা। আজ দুপুরে তাকে নিয়ে কমলগঞ্জ থানায় আসেন স্থানীয় এক ইউপি সদস্য। এ সময় থানার সামনে কথা হয় গৃহকর্মী হাসনার সাথে। শরীরটা ফুলা। কথা শোনে বোঝা গেলো সে শারীরিক অসুস্থ। আলাপকালে সে বলে, কারণে অকারনে তাকে নির্যাতন করতেন ব্যাংকার ও তার স্ত্রী। হাসনার সারা শরীরেই মানুষরূপি হায়েনাদের অমানুষিক নির্যাতনের চিহৃ। তার শরীরের এমন কোনো স্থান নেই যেখানে নির্যাতন করা হয়নি। তার উপর চলা নিষ্টুরতা কথা আর নির্যাতনের চিহৃ দেখে আমি নির্বাক। আজ বিচারের আশায় আশ্রয় নিয়েছে থানায়।আশা করি কমলগঞ্জ থানা পুলিশ হাসনার কথা একটু ধৈর্য ধরে শুনে নিবে আইনানুগ ব্যবস্থা। কোনো অজুহাতেই যেন থাকে থানা থেকে ফিরিয়ে দেওয়া না হয়। বিচার যেন পায় হাসনা। তদন্তে নেওয়া হয় যেন নির্যাতনকারীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা।

Developed by :