Saturday, 31 October, 2020 খ্রীষ্টাব্দ | ১৬ কার্তিক ১৪২৭ বঙ্গাব্দ |

কমলগঞ্জে ৩ বছর ধরে ঝুঁকিপূর্ণ ব্রীজ : জনদুর্ভোগ

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের ছলিমবাজার ভায়া সুনছড়া সড়কের যোগীবিল নামক এলাকায় ৩০ বছরের পুরাতন ব্রীজটির মধ্যখান ভেঙ্গে পড়ায় ৩ বছর পূর্বে ষ্টিলের পাঠাতন দিয়ে মেরামত করলেও সেটাও ঝুঁকিপুণর্ঁ হয়ে উঠেছে। শুধু মাত্র এ সড়ক দিয়ে সিএনজি অটোরিক্স, রিক্স, মোটর সাইকেল ব্যতিত আর কোন ধরনের বড় যানবাহন চলাচল করছে না। এতে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন যোগীবিল, চিৎলীয়া, জাঙ্গালী, রাজকান্দি খাসিয়াপুঞ্জী গ্রামের হাজার হাজার মানুষ।

স্থানীয়রা জানান, উপজেলা সদরের সাথে একমাত্র যোগাযোগ মাধ্যম ছলিমবাজার-সুনছড়া সড়ক। কিন্তু গত ৩ বছর আগে পুরাতন ব্রীজটির মধ্যখানে ঢালাই ভেঙ্গে পড়ে। সেই ঢালাই অল্প অল্প করে ভেঙ্গে বিশাল আকার ধারন করলে এলাকাবাসীর দাবীর প্রেক্ষিতে এলজিইডি বিভাগ ভাঙ্গা স্থানে ২টি পাঠাতন দিয়ে যান চলাচল শুরু করে। বর্তমানে ব্রীজটির পাঠাতন ঝুকিঁপুণ হয়ে পড়ায় যানবাহন চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সম্প্রতি ১ কোটি টাকা ব্যয়ে সড়কটি পাকাকরণ হলেও ব্রীজটির কারনে সিএনজি অটোরিক্স, রিক্স, মোটর সাইকেল ব্যতিত বড় কোন গাড়ি চলাচল করতে পারচ্ছে না। ফলে জনদূর্ভোগে পড়েছেন জনসাধারণ ও স্কুল কলেজের শিক্ষার্থী । যোগীবিল গ্রামের অনুকুল দেবনাথ জানান, দীর্ঘ দিন যাবত সড়কটি দিয়ে বড় ধরনে গাড়ি যাতায়াত করতে পাচ্ছে না। এতে আমরা চরমদুর্ভোগে পড়েছেন এলাকাবাসী।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুল হক বাদশা ও সদস্য সুকুমার দেবনাথ জানান, প্রায় ৩ বছর যাবৎ অল্প অল্প করে ভেঙ্গে বিশাল আকার ধারন করায় চলাচল অনুপযোগী ব্রীজটি। মানুষজন চলাচল করতে পাচ্ছেন না। ্তারা ব্রীজটির বিষয়ে উপজেলা পরিষদ মিটিংয়ে ও প্রকৌশলীর অফিসেও জানিয়েছেন। কমলগঞ্জ উপজেলা প্রকৌশলী মো: জাহিদুল ইসলাম বলেন, স্থানীয়রা অবগত করায় ব্রীজটির জন্য প্রকল্প পাঠানো হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ

Developed by :